728X90

0

0

0

0

0

0

0

0

0

এই অনুচ্ছেদে

ফুট কর্ন বা পায়ে কড়া হলে কী করবেন?
726

ফুট কর্ন বা পায়ে কড়া হলে কী করবেন?

কড়া এড়াতে নিয়মিত পা পরিষ্কার করা এবং ময়শ্চারাইজিং করাও দরকার। পা পরিষ্কার থাকলে, কেলাস তৈরি হলেও, কর্ণ বা কড়ায় পরিণত হওয়ার আগেই তা চলে যায়। 

ফুট কর্ন বা পায়ে কড়া, তীব্র ব্যথার সৃষ্টি করে। দৈনন্দিন কাজকে কঠিন করে  তুলতে জুড়ি মেলা ভার।

কর্ন আর কেলাস হল মৃত ত্বকের কোষ যা হাতে বা পায়ে ঘন ক্ষত তৈরি করে।  তবে, এই দুটি একে অপরের থেকে দেখতে আলাদা হয়যেখানে কর্ণগুলি একটি শক্ত এবং পুরু কোরযুক্ত, পুরু মৃত ত্বকের কোষগুলির অংশ, সেখানে কেলাসগুলি তুলনামূলকভাবে বড়, আকার এবং পুরুত্বে পরিবর্তনীয় এবং এতে কোনও কোর থাকে নাকেলাস এবং কর্ন উভয়েরই অবিলম্বে চিকিৎসা করা উচিত যাতে সংক্রামিত হয়ে ছড়িয়ে পড়া এবং বেদনাদায়ক হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়

বিশেষজ্ঞদের মতে, যদিও কর্ণ বা পায়ের কড়ার চিকিৎসা সাধারণত অস্ত্রোপচার এবং বিনা অস্ত্রোপচার দুইয়ের মাধ্যমেই করা যায়। সাধারণ ক’টি নিয়ম মেনেও এটির প্রতিরোধ করা যেতে পারে 

কীভাবে পায়ে কড়া পড়ে?

কর্ন (পায়ের কড়া), যাকেহেলোমাবাক্লাভাস বলা হয় তা হল ত্বক কোষের পুরু ক্ষত 

যখনই মানুষ দাঁড়ায় বা হাঁটে, তখনই পায়ের পাতার তলায় পুরো শরীরের ওজন অনুভূত হয়,” বলেন ভিকেয়ার ক্লিনিক মুম্বাইয়ের পডিয়াট্রিস্ট, ডাঃ সারিকা জাম্বুলকার৷ফলস্বরূপ, পায়ের নির্দিষ্ট কিছু অঞ্চলে আরও চাপ অনুভূত হয়পায়ের প্রকারের উপর ভিত্তি করে চাপ পরিবর্তিত হয়বিশেষ করে ফ্ল্যাট ফুট বা হাই আর্চডেএবং এর সাথে পায়ের বিভিন্ন অঞ্চলেসুতরাং, এইসব অংশগুলির যে যে জায়গায় চাপ বেশি অনুভূত হয় সেই সেই জায়গায় কেলাস তৈরি হওয়ার প্রবণতা থাকে, যেগুলির চিকিৎসা না করা হলে সেগুলি কর্ণ বা কড়ায় পরিণত হতে পারে।” 

তবে, কোনও কড়া বা কর্ণ সবসময় আগেভাবে কেলাস তৈরি করে নাকখনও কখনও, এটি সরাসরি বেড়ে ওঠে 

পায়ে কড়া পড়ার কারণ এবং লক্ষণ

দাঁড়ানো, হাঁটা এবং দৌড়ানোর মতো নানান কাজকর্মের ফলে পায়ের উপর চাপ পড়ে যা কর্ণ বা পায়ের কড়া তৈরি করতে পারেন্যারোফিটিং শু এবং হাই হিল পরার কারণে পায়ের আঙ্গুলে ক্র্যাম্প পড়ার পাশাপাশি কড়াও হতে পারে। “সেগুলি শরীরের ওজনকে বন্টন করার উপায়কেও পরিবর্তন করে, পায়ের অগ্রভাগে চাপ বৃদ্ধি করেএটি পায়ের আঙুলে, পায়ের নিচে কড়া বা কর্ণ তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়,” ডাঃ জাম্বুলকার আরও বলেন। “কড়া পড়ার আরেকটি প্রধান কারণ হল প্রচুর ঘর্ষণ সৃষ্টিকারী অনুপযুক্ত মাপের স্পোর্টস জুতা পরা।” চাপ এবং ঘর্ষণ উভয়ই পায়ের সেই অংশে ত্বকের স্তরকে ঘন করে তোলে এবং কড়া তৈরির দিকে নিয়ে যেতে পারে 

পায়ের কড়ার বেদনাদায়ক উপসর্গ এবং প্রভাব

পায়ের আঙ্গুলের শক্ত কড়া এবং তাদের মাঝখানে দেখতে পাওয়া নরম কড়া দুটিকে স্পর্শ করলে সেগুলি বেদনাদায়ক বলে মনে নাও হতে পারেবরং, একজন ব্যক্তি দাঁড়ানো, হাঁটা এবং দৌড়ানোর মতো ক্রিয়াকলাপের সময় ব্যথা অনুভব করে যা সেই অংশগুলিতে চাপ প্রয়োগের ফলে হয়চিকিৎসায় দেরি হলে ব্যথাও বেড়ে যায় 

যেহেতু পায়ে কড়া আছে এমন ব্যক্তিদের কাছে হাঁটাটাও কষ্টকর বলে মনে হয়, তাই তাদের দৈনন্দিন জীবনে কোনো ধরনের শারীরিক কার্যকলাপ করার সম্ভাবনা কম থাকে, যা তাদের ফিটনেসকেও ব্যাহত করতে পারে,” বলেন ডাঃ জাম্বুলকার 

কীভাবে পায়ে কড়া পড়া আটকানো যেতে পারে?

কড়া আটকানোর চাবিকাঠি সমস্যাটির কারণের সংশোধনের মধ্যে লুকিয়ে আছে। “যেহেতু অনুপযুক্ত জুতো এটির একটি প্রধান কারণ, তাই সঠিকভাবে পায়ে ফিট হওয়া জুতোর ব্যবহার করা দরকার,” ডঃ জাম্বুলকার ব্যাখ্যা করেন। “হাই হিল পরা বা খালি পায়ে হাঁটা এড়িয়ে চলুনস্পোর্টস শু পরার সময়, ঘর্ষণ কমাতে এবং শারীরিক ক্রিয়াকলাপের সময় পাকে আরও সুরক্ষা দিতে স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা মোটা মোজা পরুন।”

ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখাও গুরুত্বপূর্ণ। কড়া এড়াতে নিয়মিত পা পরিষ্কার করা এবং ময়শ্চারাইজিং করাও দরকার। পা পরিষ্কার থাকলে, কেলাস তৈরি হলেও, কর্ণ বা কড়ায় পরিণত হওয়ার আগেই তা চলে যায় 

কীভাবে কর্ণ বা কড়ার চিকিৎসা করবেন?

শল্যচিকিৎসা বিনাশল্যচিকিৎসা উভয় পদ্ধতির মাধ্যমে কর্ন বা কড়াকে অপসারণ করা যায়সাধারণত, লোকেরা ত্বকের পুরু ক্ষতকে তোলার চেষ্টা করে এবং টেনে তুলেও ফেলেকেলাস অপসারণের জন্য তা কাজ করলেও, এটি কড়ার চিকিৎসা করার ক্ষেত্রে সুপারিশ করা হয় নাকারণ সেগুলি পায়ের টিস্যুর লেয়ারগুলির গভীরে বৃদ্ধি পেতে পারে এবং সেগুলিকে টেনে তুলে ফেলার চেষ্টা করা হলে তা আরও ক্ষতি করতে পারে 

কিছু লোক কিছু নির্দিষ্ট মলম বা কর্ণ ক্যাপ ব্যবহার করে, যা কর্ণের চিকিৎসার ক্ষেত্রে খুব কার্যকর নয়,” শেয়ার করেন ডাঃ জাম্বুলকার। “সঠিক জুতো পরলে তা পায়ে আসা চাপকে বন্টন করে দেয় যা কড়া পড়া বা কর্ণ হওয়া জায়গাগুলির উপর চাপ কমাতে সাহায্য করেএরপর, আশেপাশের স্বাস্থ্যকর টিস্যুগুলিকে ধ্বংস না করে কর্ণকে অপসারণ করা যেতেই পারে।” 

কর্ণ সম্পূর্ণরূপে অপসারণ তা আবার ফিরে আসার সম্ভাবনাকে কম করতে পারেকিন্তু ওজন সমানভাবে বণ্টন করতে এবং চাপ ঘর্ষণ কমাতে সঠিক মাপের জুতো পরার জন্য পডিয়াট্রিস্টের পরামর্শও অনুসরণ করা উচিত 

সারাংশ

  • কর্ণ বা ফুট কর্ন বা পায়ের কড়া হল একটি শক্ত পুরু কোর সহ পুরু মৃত ত্বকের কোষগুলির একটি ছোট এবং সুসংজ্ঞায়িত অঞ্চল 
  • পায়ে শরীরের ওজন কীভাবে বিতরিত হয় তার উপর নির্ভর করে, প্রেসার পয়েন্টগুলি তৈরি হয়সময়ের সাথে সাথে, এইসব অঞ্চলের টিস্যু ঘন হয়ে যেতে পারে, যার ফলে কর্ণ তৈরি হয় 
  • বেমানান জুতার সাইজ, যা ঘর্ষণ সৃষ্টি করে, পায়ে কর্ণ হওয়ার আরেকটি কারণ 

এগুলিকে অস্ত্রোপচার এবং বিনাঅস্ত্রোপচারের দ্বারা অপসারণ করা যেতে পারেপডিয়াট্রিস্টের সাথে পরামর্শ করা, জুতো সাইজের সংশোধন করা এবং পা পরিষ্কার করা ময়শ্চারাইজ করা ত্বককে নমনীয় স্বাস্থ্যকর রাখবে, যা পায়ে কর্ণ হওয়ার সম্ভাবনাকেও অনেকাংশে রুখে দেবে 

আপনার অভিজ্ঞতা বা মন্তব্য শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এখন খবরে

প্রবন্ধ

প্রবন্ধ
দাঁত এবং মাড়ির স্বাস্থ্য খারাপ হলে সংক্রামক এন্ডোকার্ডাইটিস হতে পারে অর্থাৎ হার্ট ভালভের আস্তরণের ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ। 
প্রবন্ধ
ছেলের বয়স 20 ছোঁয়নি, কিন্তু মাথায় একগাদা পাকা চুল। কেন হয় এমনটা, চুল পাকার স্বাভাবিক বয়সই বা কত, এই সব প্রশ্নের উত্তরই জেনে নেওয়া যাক।
প্রবন্ধ
ব্যায়াম নারীদের হাড় মজবুত রাখতে এবং হরমোনের ওঠানামা প্রতিরোধে সাহায্য করে। বাড়িতে 40 মিনিটের ব্যায়াম মহিলাদের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যকে উন্নত করে।
প্রবন্ধ
যোগায় হস্তমুদ্রা শুধুমাত্র ভঙ্গিমা নয়, প্রতিটি মুদ্রার নিজস্ব স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে।
প্রবন্ধ
ছয় বছরের মধ্যে দুবার কিডনি প্রতিস্থাপন করেছেন। অ্যাডভেঞ্চার প্রেমী কলকাতার সেই ব্যবসায়ী এর মধ্যেই রোমাঞ্চের স্বাদও নিতে বেরিয়ে পড়েছেন।
প্রবন্ধ
ডার্মাটোমায়োসাইটিসের প্রাথমিক লক্ষণ, ত্বকের ফুসকুড়ি, পেশির দুর্বলতার মতো বেশ কিছু বিষয়। কিন্তু কখনও তা রক্ত সঞ্চালন প্রভাবিত করে, আবারও কোলন ক্যান্সারও ডেকে আনতে পারে।

0

0

0

0

0

0

0

0

0

Opt-in To Our Daily Healthzine

A potion of health & wellness delivered daily to your inbox

Personal stories and insights from doctors, plus practical tips on improving your happiness quotient

Opt-in To Our Daily Healthzine

A potion of health & wellness delivered daily to your inbox

Personal stories and insights from doctors, plus practical tips on improving your happiness quotient
We use cookies to customize your user experience, view our policy here

আপনার প্রতিক্রিয়া সফলভাবে জমা দেওয়া হয়েছে.

হ্যাপিস্ট হেলথ টিম যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনার কাছে পৌঁছাবে।